ঢাকা, বাংলাদেশ | মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   গত দুই সপ্তাহে গাজায় ৯ লাখের বেশি ফিলিস্তিনি বাস্তুচ্যুত    খাগড়াছড়ি সদর দীঘিনালা ওপানছড়িতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে    আজ অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেনি ওং ঢাকায় আসেন    রাইসির হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের কোনো হাত নেই: মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী    নরসিংদীতে যাত্রীর ছুরিকাঘাতে ইজিবাইক চালক খুন, যাত্রী আটক    ‘৪৭ ডিগ্রি তাপমাত্রা, রেড অ্যালার্ট’ জারি ভারতের দিল্লিতে    রাইসির হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের পর যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা চেয়েও পায়নি ইরান    পুত্র সন্তানের মা হয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ইয়ামি গৌতম    এভারেস্টের পর প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে লোৎসে জয় করলেন বাবর    আন্তর্জাতিক চা দিবস আজ    কাকে বিয়ে করছেন দক্ষিণী অভিনেত্রী আনুশকা?    চুয়াডাঙ্গা ২৫০ শয্যা হাসপাতাল উ‌দ্বোধন হ‌লেও মে‌লে‌নি অনুম‌তি    নাগরিকত্ব ফিরে পেয়ে প্রথমবার ভোট দিলেন অক্ষয়    দুই বোনকে হাতুড়িপেটা করা সেই ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার    ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

ছয় বছর কাজ ছিল বন্ধ। ফের চলতি সপ্তাহে সৌদি আরবের জেদ্দা টাওয়ারের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। আর নির্মাণ কাজ শেষ হলেই এটি হবে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন। ছাড়িয়ে যাবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বুর্জ খলিফাকেও। জেদ্দা টাওয়ারের উচ্চতা তিন হাজার ২৮০ ফুট।

আগে টাওয়ারটির নাম ছিল কিংডম টাওয়ার। পরে নাম পাল্টে জেদ্দা টাওয়ার করা হয়। জেদ্দা শহরে অবস্থানের কারণে ভবনটির এ নাম দেওয়া হয়।

জেদ্দা টাওয়ারের নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ১.২ বিলিয়ন ডলার। এটির নকশা করেছেন শিকাগোভিত্তিক অ্যাড্রিয়ান স্মিথ + গর্ডন গিল আর্কিটেকচারের স্থপতি অ্যাড্রিয়ান স্মিথ ও গর্ডন গিল।

আগামী চার থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে ভবনটির কাজ শেষ হবে বলে আশা করছে সংশ্লিষ্টরা। ২০১৩ সালে প্রকল্পটির কাজ শুরু হয়েছিল। ভবনটি নির্মাণ করছিল বিনলাদিন গ্রুপ। গ্রুপটির প্রেসিডেন্ট ছিলেন ওসামা বিন লাদেনের সৎ ভাই বকর বিন লাদেন। কিন্তু দুর্নীতি বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে বকর বিন লাদিনকে গ্রেফতার করা হয়। ২০১৮ সালে ভবনটির নির্মাণ কাজ বন্ধ হয়ে যায়।

ছয় বছর আগে নির্মাণ কাজ বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত ভবনটির এক-তৃতীয়াংশ কাজ সম্পন্ন হয়। নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে জেদ্দা টাওয়ার বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন দুবাইয়ের বুর্জ খলিফাকেও ছাড়িয়ে যাবে। এটি হবে নিউইয়র্কের এম্পায়ার স্টেট বিল্ডিংয়ের উচ্চতার দ্বিগুণ এবং স্ট্যাচু অব লিবার্টির উচ্চতার ১১গুণ।

গগনচুম্বী ভবনটিতে অত্যাধুনিক এলিভেটরের পাশাপাশি থাকবে ৫৯টি লিফট।

নির্মাণ কাজ স্থগিত হওয়ার আগে ভবনটির প্রায় এক-তৃতীয়াংশ কাজ শেষ হয়েছিল। সম্পূর্ণ কাজ শেষ হলে এর উচ্চতা হবে তিন হাজার ২৮১ ফুট বা এক কিলোমিটার। দুবাইয়ের বুর্জ খলিফার চেয়েও এর উচ্চতা হবে প্রায় ৫৬৪ ফুট বেশি।

বুর্জ খলিফার মতো জেদ্দা টাওয়ারেও বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা থাকবে। ভবনটি আবাসিক, বাণিজ্যিক ও অফিসিয়াল কাজের জন্য ব্যবহার করা হবে। এছাড়াও ভবনটিতে অবজারভেশন ডেক, হোটেল, হেলিপ্যাড ব্যবস্থা। এছাড়াও এ অট্টালিকায় পর্যটকদের জন্যও থাকবে নানা আকর্ষণ।

এনএএন টিভি


One Reply to “উচ্চতায় বুর্জ খলিফাকেও ছাড়িয়ে যাবে সৌদি আরবের জেদ্দা টাওয়ার”

Comments are closed.

প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।