ঢাকা, বাংলাদেশ | মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   দেশের বাজারে আরও বেড়েছে স্বর্ণের দাম    ঢাকাসহ রাতে ১০ অঞ্চলে ঝড়ের আভাস    নরসিংদীতে ৩ বছরের শিশুর মৃতদেহ উদ্ধারসহ ৩ জন আটক    হজ ক্যাম্পে কোনো ধরনের হয়রানি ও ভোগান্তির স্বীকার হননি –ধর্মমন্ত্রী    বেনজীরের ৭ পাসপোর্টের সন্ধান মিলল    আজকে দেশের তাপমাত্রা    ঈদযাত্রায় সড়কে নিহত হয়েছেন ২৩০ জন: বিআরটিএ    আগামী ১০ জুলাই গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি    পটুয়াখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু    এ সফর ছিল সংক্ষিপ্ত, কিন্তু অত্যন্ত ফলপ্রসূ –প্রধানমন্ত্রী    ফেনীতে খুন হওয়া সুমন ছিলেন মা-বাবার শেষ অবলম্বন    পুঁজিবাজারে সূচকের সঙ্গে বাড়ল লেনদেনও    ঈদের মাসে ২৩ দিনে প্রবাসী আয় এল ২০৫ কোটি ডলার    বিয়ের জন্য সাঁজতে পার্লারে গিয়ে তরুণী নিহত সাবেক প্রেমিকের গুলিতে    অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

উচ্চরক্তচাপ বা হাইপারটেনশন শব্দটির সঙ্গে আমরা সবাই পরিচিত।

প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই দু-একজন হয়তো উচ্চরক্তচাপজনিত সমস্যায় ভুগছেন। এটি একটি নীরব ঘাতক। উচ্চরক্তচাপের রোগীদের হৃদরোগের আশঙ্কা প্রবল থাকে। এ কারণে এই জটিল রোগ ধরা পড়লেই সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

উচ্চরক্তচাপের রোগীদের প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় একটি বিশেষ পানীয় রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন পুষ্টিবিদরা। সেটি হলো বেদানার রস। নিয়মিত চিনি ছাড়া এক কাপ বেদানার রস খেলেই ভীষণ উপকার পাবেন উচ্চরক্তচাপে ভোগা রোগীরা।

যে কারণে বেদানার রস খাবেন—

  • বেদানার রসে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ এবং ফোলেট থাকে। অন্যান্য ফলের রসের তুলনায় বেদানার রসে তিনগুণ বেশি অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে। গ্রিন-টি এবং রেড ওয়াইনের থেকেও বেদানার রসে বেশি পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। সিস্টোলিক এবং ডায়াস্টোলিক রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে বেদানার রস। ফলে মানসিক চাপ, দুশ্চিন্তা কমে।
  • হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও কমে। আর্টারি পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে বেদানা। এই ফলের রস তাই রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে দারুণ কার্যকর। এর পলিফেনল অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেশি হলে তাদেরকে নিয়মিত বেদানার রস খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।
  • তবে উচ্চরক্তচাপ কমাতে শুধু বেদানার রস খেলেই হবে না। জীবনধারাতেও পরিবর্তন আনার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। বিশেষ করে উচ্চরক্তচাপের রোগীদের লবণ ছাড়া খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এ ছাড়া অ্যালকোহল, ধূমপানের অভ্যাস ছাড়ার পাশাপাশি তৈলাক্ত, মসলাদার খাবার এবং জাঙ্ক ফুড না খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন পুষ্টিবিদরা।


প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।