ঢাকা, বাংলাদেশ | মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   দেশের বাজারে আরও বেড়েছে স্বর্ণের দাম    ঢাকাসহ রাতে ১০ অঞ্চলে ঝড়ের আভাস    নরসিংদীতে ৩ বছরের শিশুর মৃতদেহ উদ্ধারসহ ৩ জন আটক    হজ ক্যাম্পে কোনো ধরনের হয়রানি ও ভোগান্তির স্বীকার হননি –ধর্মমন্ত্রী    বেনজীরের ৭ পাসপোর্টের সন্ধান মিলল    আজকে দেশের তাপমাত্রা    ঈদযাত্রায় সড়কে নিহত হয়েছেন ২৩০ জন: বিআরটিএ    আগামী ১০ জুলাই গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি    পটুয়াখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু    এ সফর ছিল সংক্ষিপ্ত, কিন্তু অত্যন্ত ফলপ্রসূ –প্রধানমন্ত্রী    ফেনীতে খুন হওয়া সুমন ছিলেন মা-বাবার শেষ অবলম্বন    পুঁজিবাজারে সূচকের সঙ্গে বাড়ল লেনদেনও    ঈদের মাসে ২৩ দিনে প্রবাসী আয় এল ২০৫ কোটি ডলার    বিয়ের জন্য সাঁজতে পার্লারে গিয়ে তরুণী নিহত সাবেক প্রেমিকের গুলিতে    অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার গোহালা ইউনিয়নের মুনিরকান্দি গ্রামে ঘুমন্ত স্ত্রী ও সন্তানের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়েছিলেন স্বামী ওসমান শেখ। এ ঘটনার ছয়দিন পরে দগ্ধ হেলেনা আক্তারের (৩৬) মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (১০ জুন) সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় দগ্ধ ছেলে অন্তরের (১১) অবস্থা আশঙ্কাজনক। সেও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি।

এরআগে, গত ০৪ জুন (মঙ্গলবার) রাত ১টার দিকে তাদের গায়ে আগুন দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন হেলেনার ভাই ইমরান হোসেন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। শরীরের ৫০ শতাংশ পুড়ে যাওয়ায় চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে পাঠান।

জানা গেছে, স্বামী ওসমান শেখ তার শ্বশুরবাড়ি মুনিরকান্দি গ্রামে অবস্থানরত ঘুমন্ত স্ত্রী হেলেনা ও তাদের সন্তান অন্তরের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেন। ওসমান মাদকাসক্ত থাকায় পারিবারিক ও দাম্পত্য কলহে হেলেনা বেগম সন্তান অন্তরকে নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতেন। এই বিরোধে ওসমান গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় তাদের গায়ে আগুন লাগিয়ে স্ত্রী ও সন্তানকে হত্যার চেষ্টা করেন বলে জানিয়েছে পরিবার ও এলাকাবাসী।

মুকসুদপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আশরাফুল আলম জানান, স্বামীর দেওয়া আগুনে দগ্ধ হেলেনা আক্তার ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। যথাযথ আইনি প্রক্রিয়ায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এই ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। আগুন দেওয়ার পর থেকেই অভিযুক্ত আসামি ওসমান শেখকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এনএএন টিভি


প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।