ঢাকা, বাংলাদেশ | মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   ১৫৫ মিলিয়ন বছরের পুরনো স্টারফিশ এর সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা    নবাগত নায়িকা হিসেবে মন্দিরা অসাধারণ –রাজ    ‘স্যার’ না বলায় সাংবাদিকের ওপর চট‌লেন প্রিজাইডিং অফিসার    নতুন ঠিকানা পেলো সড়ক দুর্ঘটনায় মা হারানো জাহিদ    আজ আইপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ার    দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়ে ২৭৮৪ ডলার    গত দুই সপ্তাহে গাজায় ৯ লাখের বেশি ফিলিস্তিনি বাস্তুচ্যুত    খাগড়াছড়ি সদর দীঘিনালা ওপানছড়িতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে    আজ অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেনি ওং ঢাকায় আসেন    রাইসির হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের কোনো হাত নেই: মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী    নরসিংদীতে যাত্রীর ছুরিকাঘাতে ইজিবাইক চালক খুন, যাত্রী আটক    ‘৪৭ ডিগ্রি তাপমাত্রা, রেড অ্যালার্ট’ জারি ভারতের দিল্লিতে    রাইসির হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের পর যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা চেয়েও পায়নি ইরান    পুত্র সন্তানের মা হয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ইয়ামি গৌতম    এভারেস্টের পর প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে লোৎসে জয় করলেন বাবর

‘ছেলের দু’পা জড়িয়ে ধরে বলছিলাম বাবা আমাকে মেরো না, তারপরেও ছেলে আমাকে ছাড়েনি। লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে। শরীরের বিভিন্নস্থানে পিটিয়ে জখম করে দিয়েছে।’ নিজ ছেলের হাতে নির্মম নির্যাতনের কথা কান্নাজড়িত কণ্ঠে এভাবেই বর্ণনা করছিলেন কামারখন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেডে চিকিৎসাধীন ৬০ বছরের বৃদ্ধ মা শাহনাজ খাতুন।

তিনি বলেন, ছেলে শাহ আলম ঋণগ্রস্ত রয়েছ। ছেলে ঋণ পরিশোধের জন্য আমার ও স্বামীর হজের জন্য ব্যাংকে রাখা টাকা অথবা জমি লিখে না দেওয়ায় ছেলে ও পুত্রবধূ তাকে মারপিট করেছে। এর আগেও ছেলের বউ তাকে দু’বার মারপিট করেছে। আহত মা ছেলের এমন শাস্তি দাবি করেছেন, যাতে অন্য কেউ মাকে এভাবে মারধর না করে। শাহনাজ খাতুন হায়দারপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের স্ত্রী।

মা শাহনাজ খাতুন আরও বলেন, শুক্রবার দুপুরে প্রথমে ছেলের বউয়ের সাথে সামান্য ঝগড়া হওয়ায় ছেলের বউ মনিজা খাতুন আমাকে মারধর করে। দুই ঘণ্টা পর ছেলে শাহ আলম বাড়িতে এসেই আমার হাঁটার জন্য ব্যবহৃত লাঠি কেড়ে নিয়ে বেধড়ক মারধর শুরু করে। আমি মাটিতে পড়ে ছেলের দু’পা জড়িয়ে ধরলেও আমাকে ছাড়েনি।

মামলা করবেন না বলে জানিয়ে বৃদ্ধা মা ও বাবা শহিদুল ইসলাম বলেন, আমি সামাজিকভাবে তার শাস্তি চাচ্ছি। যাতে অন্য কেউ মাকে এমনভাবে মারধর না করেন।

ছেলের বউ মনিজা খাতুন শাশুড়িকে মারধর করেননি বলে জানিয়ে বলেছেন, শাশুড়ি তার অন্য ছেলে-মেয়েকে টাকা-পয়সা জমি দিলেও আমার স্বামীকে দেয়নি। সব সময় ঘর থেকে বের হয়ে যেতে বলেন। এজন্য সেদিন তার ছেলে তাকে মারপিট করেছে।

রায়দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ফরহাদুল হক হ্যাপি বলেন, ঘটনাটি জানার পরেই এলাকার মানুষজনদের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছি। দ্রুতই বিচার-সালিশ করে মীমাংসা করে দেওয়া হবে।

কামারখন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. বিজয় হোসেন জানান, আহত শাহনাজ খাতুনের মাথায় ৩টা সেলাই দেওয়া হয়েছে। শরীরের বিভিন্ন অংশে জখমের দাগ রয়েছে। এখন আগের চেয়ে অবস্থা অনেকটাই ভালো।

কামারখন্দ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এনএএন টিভি


প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।