ঢাকা, বাংলাদেশ | রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   চট্টগ্রামে কোটা সংস্কার আন্দোলনে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত দুই তরুণ    কোটা সংস্কার আন্দোলন ঘিরে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ১১ জনের মৃত্যুর খবর    আন্দোলনকারীদের পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে জামায়াত    নরসিংদীতে কোটা আন্দোলনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে স্কুলশিক্ষার্থী নিহত    নাটোরে মিছিলের প্রস্তুতির সময় ১৮ স্কুলছাত্রকে পুলিশে দিলেন প্রধান শিক্ষক    জুলাইয়ের ২১, ২৩ ও ২৫ তারিখের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত    ছাত্রলীগ-কোটা আন্দোলনকারিদের সংঘর্ষ, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ    কোটা আন্দোলনে রেসিডেনসিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী ফারহান নিহত    শ্রীমঙ্গলে চাঞ্চল্যকর আইনজীবী হত্যাকাণ্ডে জড়িত ২জন গ্রেপ্তার    চট্টগ্রাম রেগুলেশন বাতিলের ষড়যন্ত্র বন্ধের দাবিতে মিছিল    চুয়াডাঙ্গায় শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ; ছাত্রলীগের হামলা    আজ বন্ধ থাক‌বে ভারতীয় ভিসা সেন্টার    উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত    টাঙ্গাইলে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া    মিরপুর ১০ নম্বরে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশ বক্সে আগুন

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও তার সফরসঙ্গীদের নামাজে জানাজায় যোগ দিতে বুধবার তেহরানের রাস্তায় জড়ো হয়েছেন হাজার হাজার ইরানি।

শহরের কেন্দ্রস্থলে, রাইসির প্রতিকৃতি হাতে লোকেরা তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশে জড়ো হয়। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি রাইসি এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আবদুল্লাহিয়ানসহ তার সঙ্গীদের জন্য প্রার্থনা করবেন।

আজারবাইজান সীমান্তে একটি বাঁধ প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পর রবিবার ইরানের উত্তরাঞ্চলে তাবরিজ শহরে যাওয়ার পথে কুয়াশায় ঢাকা পাহাড়ে রাইসির হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়। তুরস্ক, রাশিয়া ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহায়তায় বিশাল অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়। সোমবার সকালে রাইসির মৃত্যুর খবর জানায় দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন।

রাইসির বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর। তিনি ইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনির স্থলাভিষিক্ত হতেন বলে বিশ্বাস করা হয়।

এএফপির খবরে বলা হয়েছে, রাইসিকে ‘রাষ্ট্রীয় সেবা দিতে গিয়ে শহীদ’ হিসেবে অভিহিত করে বিশাল বিশাল ব্যানার টাঙানো হয়েছে। তেহরানের বাসিন্দাদের ফোনে বার্তায় ‘শহীদের জানাজায় অংশ নেওয়ার’ আহ্বান জানানো হয়েছে।

রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, বিদেশি অতিথিদের অংশগ্রহণে একটি শোকযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে। এটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রওনা হয়ে শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত এনঘেলাব স্কয়ারের দিকে যাবে।

মঙ্গলবার তাবরিজ শহর এবং শিয়া ধর্মীয় কেন্দ্র কোমে হাজার হাজার কালো পোশাক পরিহিত শোকার্ত মানুষের উপস্থিতির মধ্য দিয়ে প্রয়াত প্রেসিডেন্ট এবং তার সফরসঙ্গীদের শেষকৃত্য অনুষ্ঠান শুরু হয়। তেহরান থেকে নিহতদের মরদেহ দক্ষিণ খোরাসান প্রদেশে নিয়ে যাওয়া হবে এবং পরে তা রাইসির নিজ শহর মাশহাদে স্থানান্তর করা হবে।  বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ইমাম রেজা মাজারে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হবে।

এনএএন টিভি


One Reply to “তেহরানে রাইসির জানাজায় হাজার হাজার মানুষ”

Comments are closed.

প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।