ঢাকা, বাংলাদেশ | মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   নরসিংদীতে যাত্রীর ছুরিকাঘাতে ইজিবাইক চালক খুন, যাত্রী আটক    ‘৪৭ ডিগ্রি তাপমাত্রা, রেড অ্যালার্ট’ জারি ভারতের দিল্লিতে    রাইসির হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের পর যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা চেয়েও পায়নি ইরান    পুত্র সন্তানের মা হয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ইয়ামি গৌতম    এভারেস্টের পর প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে লোৎসে জয় করলেন বাবর    আন্তর্জাতিক চা দিবস আজ    কাকে বিয়ে করছেন দক্ষিণী অভিনেত্রী আনুশকা?    চুয়াডাঙ্গা ২৫০ শয্যা হাসপাতাল উ‌দ্বোধন হ‌লেও মে‌লে‌নি অনুম‌তি    নাগরিকত্ব ফিরে পেয়ে প্রথমবার ভোট দিলেন অক্ষয়    দুই বোনকে হাতুড়িপেটা করা সেই ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার    ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক    মুগদায় গলায় ফাঁসি দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা    স্নাতকের চূড়ান্ত ফলে তৃতীয় হয়েছেন সেই অবন্তিকা    রাইসি নিহতের খবরে ফের অস্থির জ্বালানি তেলের বিশ্ববাজার    রংপুর আঞ্চলিক গবেষণা পরিকল্পনা কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ভারতে তৈরি চারটি সর্দি-কাশির সিরাপ নিয়ে সতর্কতা জারি করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

সিরাপগুলো হলো-

1 . প্রোমেথাজিন ওরাল সলিউশন

2 . কফেক্সমালিন বেবি কফ সিরাপ

3 . মাকফ বেবি কফ সিরাপ

4 . ম্যাগ্রিপ এন কোল্ড সিরাপ।

হরিয়ানা-ভিত্তিক ‘মেইডেন ফার্মাসিউটিক্যালসের’ তৈরি এই সিরাপগুলো ব্যবহারের ফলে পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের কিডনিতে ক্ষত হওয়া অথবা কিডনি বিকল হওয়ার আশঙ্কা করা হয়েছে।

জানা গেছে, পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়ায় সম্প্রতি কিডনি বিকল হয়ে ৬৬ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে মনে করা হচ্ছে, ভারতের মেইডেন ফার্মাসিউটিক্যালসের তৈরি চারটি সিরাপই পাঁচ বছরের কম বয়সী ওই শিশুদের কিডনি বিকল হওয়ার কারণ।

তাই ওই চার সিরাপ নিয়ে সতর্কবার্তা জারি করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, যাতে অন্য কোনও দেশ এই সিরাপগুলো আপাতত ব্যবহার না করে। একই সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে ওই ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে তদন্ত শুরু করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, “ওই চারটি সিরাপ পরীক্ষা করে দেখা গেছে, সেগুলোতে অস্বাভাবিক মাত্রায় ডাইথিলিন গ্লাইকল এবং এথিলিন গ্লাইকল রয়েছে।”

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রস অ্যাধানম গেব্রিয়েসাস বলেন, “এখনও পর্যন্ত গাম্বিয়াতে ওই চার সিরাপের অস্তিত্ব মিলেছে। তবে অন্য দেশও এই সিরাপগুলো ব্যবহার করে থাকতে পারে।”


প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।