ঢাকা, বাংলাদেশ | রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   চট্টগ্রামে কোটা সংস্কার আন্দোলনে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত দুই তরুণ    কোটা সংস্কার আন্দোলন ঘিরে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ১১ জনের মৃত্যুর খবর    আন্দোলনকারীদের পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে জামায়াত    নরসিংদীতে কোটা আন্দোলনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে স্কুলশিক্ষার্থী নিহত    নাটোরে মিছিলের প্রস্তুতির সময় ১৮ স্কুলছাত্রকে পুলিশে দিলেন প্রধান শিক্ষক    জুলাইয়ের ২১, ২৩ ও ২৫ তারিখের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত    ছাত্রলীগ-কোটা আন্দোলনকারিদের সংঘর্ষ, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ    কোটা আন্দোলনে রেসিডেনসিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী ফারহান নিহত    শ্রীমঙ্গলে চাঞ্চল্যকর আইনজীবী হত্যাকাণ্ডে জড়িত ২জন গ্রেপ্তার    চট্টগ্রাম রেগুলেশন বাতিলের ষড়যন্ত্র বন্ধের দাবিতে মিছিল    চুয়াডাঙ্গায় শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ; ছাত্রলীগের হামলা    আজ বন্ধ থাক‌বে ভারতীয় ভিসা সেন্টার    উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত    টাঙ্গাইলে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া    মিরপুর ১০ নম্বরে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশ বক্সে আগুন

অদ্ভুত এক সংকটে পড়েছেন মার্কিন বন্য প্রাণী নিয়ে কাজ করা কর্মকর্তারা। স্পটেড বা দাগযুক্ত বিপন্ন প্রজাতির প্যাঁচাকে রক্ষা করতে ব্যারেড প্রজাতির প্রায় সাড়ে চার লাখ প্যাঁচা মেরে ফেলার পরিকল্পনা করেছে ইউএস ফিশ অ্যান্ড ওয়াইল্ডলাইফ সার্ভিস। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে শিকারিদের মাধ্যমে গুলি করে হত্যা করা হবে প্যাঁচাগুলোকে। যুক্তরাষ্ট্রের অরেগন, ওয়াশিংটন ও ক্যালিফোর্নিয়ায় কমতে থাকা স্পটেড প্যাঁচাকে রক্ষা করতেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ব্যারেড প্রজাতির ৪ লাখ ৭০ হাজার প্যাঁচাকে আগামী ৩০ বছরের মধ্যে মেরে ফেলতে চায় মার্কিন কর্মকর্তারা। ইউএস ফিশ অ্যান্ড ওয়াইল্ডলাইফ সার্ভিসের পরিকল্পনা অনুযায়ী শিকারিদের মাধ্যমে গুলি করে এই প্যাঁচাগুলোকে হত্যা করা হবে। যুক্তরাষ্ট্রের অরেগন, ওয়াশিংটন ও ক্যালিফোর্নিয়ায় কমতে থাকা স্পটেড প্যাঁচাকে রক্ষা করতেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পরিকল্পনার অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের অরেগন, ওয়াশিংটন ও ক্যালিফোর্নিয়ার বনে থাকা প্রায় সাড়ে চার লাখ প্যাঁচা আগামী তিন দশকের মধ্যে গুলি করে মেরে ফেলা হবে। ওই কর্মকর্তাদের দাবি, ব্যারেড প্রজাতির পেঁচারা আক্রমণাত্মক। এগুলো যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব থেকে পশ্চিম অঞ্চলে প্রবেশ করে বাস্তুসংস্থান পরিবর্তন করছে। ফলে প্রশান্ত মহাসাগরীয় উপকূলের ছোট প্যাঁচা, উত্তরের স্পটেড প্যাঁচা ও ক্যালিফোর্নিয়ার স্পটেড প্যাঁচাগুলো এগুলোর কাছে অসহায়। ব্যারেড প্যাঁচার বংশবৃদ্ধির হারও বেশি।
ফিশ অ্যান্ড ওয়াইল্ডলাইফ সার্ভিসের অরেগন রাজ্যের তত্ত্বাবধায়ক কেসিনা লি বলেন, কয়েক দশকের সহযোগিতামূলক সংরক্ষণ প্রচেষ্টার পরেও উত্তরের স্পটেড প্যাঁচা বিপদে পড়ছে। এগুলো ধীরে ধীরে বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে। স্পটেড প্যাঁচাগুলো নিজের সমগোত্রের প্যাঁচার কাছেই দুর্বল হয়ে পড়ছে।

তবে অনেকে ভিন্নমতও পোষণ করছেন। তারা বলছেন, প্যাঁচা হত্যার পথে না হেঁটে উজাড় হওয়া বনগুলোকে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিতে হবে।

এনএএন টিভি


প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।