ঢাকা, বাংলাদেশ | বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   চট্টগ্রামে কোটা সংস্কার আন্দোলনে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত দুই তরুণ    কোটা সংস্কার আন্দোলন ঘিরে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ১১ জনের মৃত্যুর খবর    আন্দোলনকারীদের পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে জামায়াত    নরসিংদীতে কোটা আন্দোলনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে স্কুলশিক্ষার্থী নিহত    নাটোরে মিছিলের প্রস্তুতির সময় ১৮ স্কুলছাত্রকে পুলিশে দিলেন প্রধান শিক্ষক    জুলাইয়ের ২১, ২৩ ও ২৫ তারিখের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত    ছাত্রলীগ-কোটা আন্দোলনকারিদের সংঘর্ষ, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ    কোটা আন্দোলনে রেসিডেনসিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী ফারহান নিহত    শ্রীমঙ্গলে চাঞ্চল্যকর আইনজীবী হত্যাকাণ্ডে জড়িত ২জন গ্রেপ্তার    চট্টগ্রাম রেগুলেশন বাতিলের ষড়যন্ত্র বন্ধের দাবিতে মিছিল    চুয়াডাঙ্গায় শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ; ছাত্রলীগের হামলা    আজ বন্ধ থাক‌বে ভারতীয় ভিসা সেন্টার    উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত    টাঙ্গাইলে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া    মিরপুর ১০ নম্বরে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশ বক্সে আগুন

মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় করা মামলায় থ্রি ডক্টরস কোচিং সেন্টারের প্রধান ডা. ইউনুচ উজ্জামান খান তারিমসহ তিনজনকে চার দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

 চার দিন করে রিমান্ডপ্রাপ্ত অপর আসামিরা হলেন- ডা. অনিমেষ কুমার কুন্ডু ও ডা. কেএম বশিরুল হক।

ডা. জাকারিয়া আশরাফসহ তিনজনকে দুদিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত। দুদিনের রিমান্ডের অন্য আসামিরা হলেন-

রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষিকা মাকসুদা আক্তার মালা ও জাকিয়া ফারইভা ইভানা।

এছাড়া মুসতাহিন হাসান লামিয়াসহ চারজনের রিমান্ড নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেওয়া হয়েছে। কারাগারে যাওয়া অন্য আসামিরা হলেন-

ডা. নাজিয়া মেহজাবিন তিশা, মৈত্রী সাহা ও ডা. সাবরিনা নুসরাত রেজা টুসী।

রোববার (১৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইসলাম শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

এর আগে আসামিদের ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির অতিরিক্ত বিশেষ পুলিশ সুপার জুয়েল চাকমা।

অন্যদিকে আসামিদের রিমান্ড বাতিল ও জামিন চেয়ে আবেদন করেন তাদের আইনজীবীরা।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক তিনজনের চারদিন ও তিনজনের দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এছাড়া চার আসামির রিমান্ড নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এ মামলায় মোট ১৭ জন আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। গত ২২ আগস্ট আদালতে স্বীকারোক্তি দেন ডা. শর্মিষ্ঠা মন্ডল ও ডা. লুইস সৌরভ সরকার।

দেশের মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষাগুলোতে নিয়মিত প্রশ্নফাঁসকারী সিন্ডিকেটের খোঁজ পায় সিআইডির সাইবার পুলিশ।

এ ঘটনায় ২০২০ সালের ২০ জুলাই মিরপুর মডেল থানায় একটি মামলা করা হয়।

পাবলিক পরীক্ষা আইনের-৪/১৩ তৎসহ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এ মামলা করা হয়।

আরও পড়ুন :

এনএএন টিভি

 


One Reply to “মেডিকেল প্রশ্নফাঁস: ডা. তারিমসহ ৬ জন রিমান্ডে”

Comments are closed.

প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।