ঢাকা, বাংলাদেশ | বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ

শিরোনামঃ

   চট্টগ্রামে কোটা সংস্কার আন্দোলনে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত দুই তরুণ    কোটা সংস্কার আন্দোলন ঘিরে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ১১ জনের মৃত্যুর খবর    আন্দোলনকারীদের পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে জামায়াত    নরসিংদীতে কোটা আন্দোলনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে স্কুলশিক্ষার্থী নিহত    নাটোরে মিছিলের প্রস্তুতির সময় ১৮ স্কুলছাত্রকে পুলিশে দিলেন প্রধান শিক্ষক    জুলাইয়ের ২১, ২৩ ও ২৫ তারিখের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত    ছাত্রলীগ-কোটা আন্দোলনকারিদের সংঘর্ষ, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ    কোটা আন্দোলনে রেসিডেনসিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী ফারহান নিহত    শ্রীমঙ্গলে চাঞ্চল্যকর আইনজীবী হত্যাকাণ্ডে জড়িত ২জন গ্রেপ্তার    চট্টগ্রাম রেগুলেশন বাতিলের ষড়যন্ত্র বন্ধের দাবিতে মিছিল    চুয়াডাঙ্গায় শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ; ছাত্রলীগের হামলা    আজ বন্ধ থাক‌বে ভারতীয় ভিসা সেন্টার    উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত    টাঙ্গাইলে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া    মিরপুর ১০ নম্বরে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশ বক্সে আগুন

১৪ টিভি উপস্থাপককে বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইন্ডিয়া জোট। বুধবারই এ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তারা।

সেই সমস্ত অ্য়াংকরদের শোতে যাতে ইন্ডিয়া জোটের প্রতিনিধিরা কেউ না যান,

সে ব্য়াপারে অনুরোধ করা হয়েছে। কারণ, তাদের দাবি এই সমস্ত শো গুলিতে সাম্প্রদায়িক ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে।

কংগ্রেসের মুখপাত্র পবন খেরা জানিয়েছেন,

অত্যন্ত বিষন্ন মন নিয়ে এটা করতে হচ্ছে। ইন্ডিয়ার মিডিয়া কমিটি একটি ভার্চুয়াল মিটিংয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এক্স প্লাটফর্মে পবন খেরা হিন্দিতে একটা অডিও ক্লিপ পোস্ট করেছেন।

সেখানে তিনি জানিয়েছেন, অত্যন্ত বিষন্ন মন নিয়ে আমরা একটা তালিকা ইস্যু করছি।

আমরা নিশ্চিত যে পরিস্থিতি ঠিকঠাক হবে। আশা করছি আগামী দিনে পরিস্থিতি ভালো হবে। যখন নতুন প্রজন্ম প্রশ্ন করবেন,

তখন অ্য়াংকররা নিজেদের ভুল বুঝতে পারবেন। তখন তারা কী উত্তর দেবেন?

সেই সঙ্গেই তিনি জানিয়েছেন, উপস্থাপকদের বিরুদ্ধে আমাদের কোনও অভিযোগ নেই।

কিন্তু প্রতিদিন সন্ধ্যায় খবরের নাম করে যেভাবে ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে,

তা নিয়ে আমাদের আপত্তি। তিনি জানিয়েছেন, প্রতি সন্ধ্যা ৫টা থেকে ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে।

টিভি চ্যানেলের মাধ্যমে গত ৯ বছর ধরে এটা চলছে। মুখপাত্র আর সমালোচকরা সেখানে যান আর আমরা শুধু দর্শকের মতো ওখানে থাকি।

ইন্ডিয়া জোটের তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া দরকার। সে কারণেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ইন্ডিয়া জোট কয়েকজন উপস্থাপককে চিহ্নিত করেছে। সেই অনুষ্ঠানে আমাদের কোনও প্রতিনিধি যাবেন না।

তার মতে আপনারা ( ১৪ টিভি উপস্থাপক) বিরোধীদের মন্তব্য নিয়ে মিম তৈরি করেন। আমাদের বক্তব্যকে বিকৃত করেন। ভুয়া খবর ছড়ান।

আমরা এটা সহ্য করতে পারতাম। কিন্তু এটা হিংসার দিকে মোড় নিতে পারে দেশে। আমরা কোনও উপস্থাপকের বিরোধী নই।

তবে আমরা দেশকে ভালোবাসি। সে কারণেই এই উপস্থাপকদের বয়কট করার সিদ্ধান্ত।

যাদের বয়কট করার সিদ্ধান্ত তারা হলেন- রিপাবলিক টিভির অর্ণব গোস্বামী, টাইমস নাও নবভারতের নাভিকা কুমার, সুশান্ত সিনহা,

আজ তকের সুধীর চৌধুরী ও চিত্রা ত্রিপাঠি, নিউজ ১৮ নেটওয়ার্কের আমন চোপড়া, আমিশ দেবগন, আনন্দ নরসিংহ,

ভারত ২৪ এর রুবিকা লিয়াকত, ইন্ডিয়া টুডের গৌরব সাওয়ান্ত ও শিব আরুর, ইন্ডিয়া টিভির প্রাচি পরাশর, ভারত এক্সপ্রেসের অদিতি ত্যাগী ও ডিডি নিউজের অশোক শ্রীবাস্তব।

এনএএন টিভি


প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও
কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।